ধর্মপাশায় বরইয়া নদীতে সিমেন্ট বোঝাই নৌকা ডুবি।

সোহান আহম্মেদঃ ধর্মপাশা(সুনামগঞ্জ)
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:15 PM, 21 November 2020

সুনামগঞ্জ জেলা ধর্মপাশা উপজেলা জয়শ্রী বাজারের সামনে থাকা বরইয়া নদীতে যাত্রীবাহী একটি ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।ট্রলারডুবির ঘটনায় ট্রলারের ছাদের ওপর থাকা ৬০ বস্তা সিমেন্ট ও বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ীর মনোহারী দোকানের মালামাল নদীর পানিতে তলিয়ে গেছে। এই ঘটনায় কোনো প্রাণহানি বা কোনো যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন কীনা তা এখনো খবর মেলেনি। স্থানীয় লোকজন ওই নদী থেকে ডুবে যাওযা ট্রলারটি উদ্ধার করেছেন।

ধর্মপাশা থানা পুলিশ, এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ধর্মপাশা উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের জয়শ্রী বাজার নৌকাঘাট থেকে প্রতিদিন পাশের উপজেলা জামালগঞ্জে সাচনা বাজার নৌঘাট পর্যন্ত যাত্রীবাহী একটি ট্রলার যাত্রী নিয়ে আসা যাওয়া করে। যাত্রীদের চলাচলের পাশাপাশি এই ট্রলারটিতে বিভিন্ন দোকানের মালামালও পরিবহন করা হয়। জামালগঞ্জ উপজেলার সাচনা বাজার থেকে উপজেলার জয়শ্রী বাজারের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী ট্রলারটি আজ শনিবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে জয়শ্রী গ্রামের সামনে বরইয়া নদীতে এলে অতিরিক্ত মালামাল পরিবহনের কারণে নদীতে উল্টে গিয়ে ডুবে যায। এই ট্রলারটিতে ১৫-২০ জন যাত্রী, ৬০ বস্তা সিমেন্ট, মহোহারী দোকানের মালামাল ছিল। ট্রলারটি উল্টে যাওযার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীরা সাতরে তীরে উঠে পড়েন। এই ট্রলারডুবিতে কোনো যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে কী না তার এখনো সন্ধ্যান মেলেনি।
ঘটনাস্থল থেকে ডুবে যাওয়া ট্রলারটি আজ রাত পৌনে আটটার দিকে উদ্ধার করেছেন এলাকাবাসী।
উদ্ধার কাজে নিয়োজিত উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের বাঘাউছা গ্রামের বাসিন্দা আবুল বাশার বলেন, স্থানীয় জন প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষজনদের সহায়তায় ডুবে যাওয়া ট্রলারটি উদ্ধার করা হয়েছে। ট্রলারের ওপর অতিরিক্ত মালামাল বোঝাই করার কারণেই এই ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে বলে কয়েজন যাত্রী সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি। কোনো যাত্রী নদীর পানিতে ডুবে গিয়ে নিখোঁজ রয়েছে কীনা তা খোঁজে দেখা হচ্ছে।

ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন আজ শনিবার রাত সোয়া আটটার আটটার দিকে মুঠোফোনে দৈনিক আলোকে বলেন, উপজেলার জয়শ্রী গ্রামের সামনের বরইয়া নদী থেকে যাত্রীবাহী ট্রলারটি এলাকাবাসী উদ্ধার করেছেন বলে জানতে পেরেছি তবে প্রাণ হানি বা কোনো যাত্রী নিখোঁজ থাকার খবর এখনো আমরা পাইনি। ট্রলারের ওপরে থাকা সিমেন্টসহ মনোহারী দোকানের মালামাল নদীর পানিতে তলিয়ে গেছে। স্থানীয় লোকজন উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :