ইডেন অধ্যক্ষ হত্যায় ২ গৃহকর্মীর মৃত্যুদণ্ড

ডেস্ক রিপোর্ট
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:01 PM, 04 October 2020

রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীনকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে করা মামলায় ২ গৃহকর্মীর মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালত এ আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌশলি (পাবলিক প্রসিকিউটর) আবু আব্দুল্লাহ ভূঁইয়া সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলাটিতে মোট ৩৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৭ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন আদালত। ২০১৯ সালের ২১ জুলাই মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা নিউমার্কেট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আলমগীর হোসেন মজুমদার আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন।

অভিযোগপত্রে রুনু বেগম ওরফে রাকিবের মা এর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত না হওয়া তদন্ত কর্মকর্তা তাকে অব্যাহতির আবেদন করেন। বিচারক তাকে অব্যাহতি দেন।

২০১৯ বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের নিজ বাসায় সুকন্যা টাওয়ারে খুন হন ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ইসমত কাদির গামার করা মামলায় ওই বাসার গৃহকর্মী রিতা আক্তার ওরফে স্বপ্না ও রুমা রেশমা এবং দুই গৃহকর্মীর যোগানদাতা রুনু বেগমকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নেয় পুলিশ। জবানবন্দিতে স্বপ্ন ও রেশমা হত্যার দায় স্বীকার করে।

এরপর গত বছরের ২১ জুলাই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিউ মার্কেট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আলমগীর হোসেন মজুমদার দুই গৃহকর্মীকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। রুনু বেগমের বিরুদ্ধে অভিযোগ না পাওয়ায় চার্জশিট থেকে তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি দুই আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠনের মধ্য দিয়ে আলোচিত এ মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার কাজ শুরু হয়। গত ২৪ সেপ্টেম্বর মামলাটিতে সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। চার্জশিটভুক্ত ৩৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। গত ২৭ সেপ্টেম্বর আত্মপক্ষ শুনানিতে দুই গৃহকর্মী নিজেদের নির্দোষ দাবি করে আদালতের কাছে ন্যায়বিচার প্রার্থনা করেন।

সর্বশেষ গত ৩০ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে মামলার রায়ের জন্য ৪ অক্টোবর দিন ধার্য করেন আদালত। মামলার আসামি রিতা আক্তার ওরফে স্বপ্না ও রুমা ওরফে রেশমা কারাগারে রয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন :