এই সময়ের আলোচিত লেখক রফিকুল ইসলাম প্রিন্সের বই “সীমান্ত ” প্রি-অর্ডার চলছে।

ডেস্ক রিপোর্ট
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  01:28 PM, 05 September 2020

এই সময়ের আলোচিত লেখক রফিকুল ইসলাম প্রিন্সের বই “সীমান্ত ” প্রি-অর্ডার চলছে। সীমান্ত বই থেকে কিছু অংশ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলঃ সারাটা দিন ঘুরে ঘুরে পা আর চলছে না।মাথার উপরে সূর্য অকৃপণ ভাবে তার আগুনের ধারা ঢেলে চলেছে। বৈশাখের গরমে ঘামে জামাটা ভিজে গায়ের সঙ্গে একেবারে লেপটে গিয়েছে। শেষে পার্কের মধ্যে গাছের ছায়ায় একটা খালি বেঞ্চ দেখতে পেয়ে বসে একটু স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললাম। কিন্তু বসেও শান্তি নেই, খিদেয় পেটর মধ্যে ইঁদুর দৌড় শুরু হয়েছে, একটু ব্যথা ব্যথাও করছে।

কিন্তু কী খাব?পকেটে হাত ঢুকিয়ে টাকা ক’টা বের করে গুনে দেখলাম __এখন হোটেলে গিয়ে ভাত খাওয়া মানে বিলাসিতা, তাহলে কালকের জন্যে পকেটে আর বিশেষ কিছুই থাকব না।কী করা যায়! সামনে একটা খামচিওয়ালাকে দেখতে পেয়ে একটু চিড়ে -বাদাম ভাজা কিনে খেয়ে সিটিকর্পোরেশনের কলে মুখ ঠেকিয়ে ঢকঢক করে পেট ভরে পানি খেলাম।নাঃ,পেটের ইঁদুরটা একটু শান্ত হয়েছে। বেশ একটু হাওয়াও বইছে, ঘাম ভেজা গাটায় বেশ শীতল শীতল লাগছে। চোখ দুটো বুঁজে আসতে লাগল।আর পারলাম না,গাছের ছায়ায় বেঞ্চের উপরে ক্লান্ত দেহটাকে এলিয়ে দিলাম। মনে হাজারো চিন্তা ভীড় করে আসতে লাগল। অনেক আশা নিয়ে গাঁও গ্রাম থেকে এই মহানগরে এসেছিলাম। বন্ধুরা ভরসা দিয়েছিল অত বড় শহর, কিছু না কিছু একটা কাজ ঠিক জুটে যাবে।

শহর ঢাকা কাউকে ফেরায় না,একটা ব্যবস্থা হয়েই যায়।বহুদিন আগে শহরে চলে আসা ছোটবেলার এক প্রতিবেশীও ভরসা দিয়েছিল,সেও কিছু সাহায্য করতে পারে।কিন্তু এসে তার কোন সন্ধানই পেলাম না,সেই ঠিকানায় ওই নামে কেউ থাকে না।অতঃপর শহরের পার্ক আর ফুটপাতই ভরসা। কলেজ ইউনিভার্সিটির সার্টিফিকেটগুলো নিয়ে ক’দিন ধরে নানা অফিসের দরজায় দরজায় ঘুরেছি, অনেক কাকুতি মিনতি করেছি একটা কাজের জন্যে।কোথাও গেটের সিকিউরিটি পেরিয়ে ভিতরেই ঢুকতেই পারিনি,আবার কোথাও মালিকের প্রত্যাখ্যান।

কেউ বা মিষ্টি ভাষায় না বলে দিয়েছে, আবার কেউ আমার অনাহারক্লিষ্ট চেহারা ও ময়লা পোষাকের দিকে তাকিয়ে সার্টিফিকেটগুলোর বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েই সন্দেহ প্রকাশ করেছে, কাজ দেওয়া তো দূরের কথা। এদিকে সম্বল ক’টা টাকাও এই ক’দিনে প্রায় শেষ হয়ে এসেছে, আর দু’একদিন পরে কী খাবো, কে জানে… সীমান্ত (গল্প গ্রন্থ) রফিকুল ইসলাম প্রিন্স বইটি প্রি অর্ডার করলেই পাঠকরা পাবেন একটি গেঞ্জি ফ্রি! সীমান্ত বইটির মলাট মূল্য ৩৫০ টাকা কিন্তু প্রি-অর্ডার মূল্য ২০০ টাকা রাখা হচ্ছে এবং ডেলিভারি চার্জ সহ ২৩০ টাকা রাখা হচ্ছে।। নাম্বার গুলোতে ফোন দিয়ে অর্ডার করা যাবে- ০১৯৬০৯৯৪৩৬৫ ০১৮৬৯৮৬০৬০৩ ০১৯২৪৭৬২৬০৩

আপনার মতামত লিখুন :