ভারতকে পরমাণু অস্ত্র দিয়েই জবাব দেয়া হবে: হুঁশিয়ারি পাক রেলমন্ত্রীর

ডেস্ক রিপোর্ট
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:11 AM, 22 August 2020

ভারত-পাক সম্পর্কের অচলাবস্থার মধ্যে নতুন বোমা ফাটালেন পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী শেখ রাশিদ। একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ভারতের সঙ্গে সংঘর্ষ হলে পাকিস্তান পরমাণু অস্ত্র দিয়ে ভারতকে জবাব দেবে। তবে ভারতের মুসলিমরা যাতে আহত না হন, সে দিকে খেয়াল রাখা হবে।

এর আগেও শেখ রাশিদ এ ধরনের ‘অপ্রত্যাশিত’ মন্তব্য করেছেন। গত বুধবার পাকিস্তানের একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দিচ্ছিলেন রাশিদ। সেখানে স্বাভাবিক ভাবেই বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্কের প্রসঙ্গ উঠেছিল। রাশিদ বলেন, ভারতের সঙ্গে স্থলযুদ্ধে যেতে চায় না পাকিস্তান। যুদ্ধ হলে ভারতকে পরমাণু অস্ত্র দিয়ে জবাব দেওয়া হবে।

এ প্রসঙ্গে রাশিদের বক্তব্য, পাকিস্তানের কাছে ছোট আকারের বেশ কিছু পরমাণু অস্ত্র আছে। যা নির্দিষ্ট এলাকা চিহ্নিত করে ব্যবহার করা সম্ভব। অর্থাৎ, গোটা দেশ নয়, এলাকা ধরে ধরে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে পাকিস্তানের। এবং সেই অস্ত্রেই ভারতকে হারানোর শক্তি রাখে পাকিস্তান। এ প্রসঙ্গেই রাশিদ বলেন, ভারতের মুসলিম অধ্যুষিত এলাকাগুলি যাতে পরমাণু অস্ত্রের হাত থেকে রক্ষা পায়, সে দিকে খেয়াল রাখবে পাকিস্তান।

স্বাভাবিক ভাবেই পাকিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ এক মন্ত্রীর এমন বয়ানে আলোড়ন শুরু হয়েছে। ভারতের কূটনৈতিক মহলে এই মন্তব্যের নিন্দা হয়েছে। তবে সরকারি ভাবে রাশিদের এই মন্তব্যের কোনও উত্তর এখনও দেওয়া হয়নি।

পাকিস্তানের সামরিক শক্তি বিষয়ক বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, এই মুহূর্তে পাকিস্তানের কাছে যে পরমাণু অস্ত্র রয়েছে, তা দিয়ে আসাম পর্যন্ত আক্রমণের ক্ষমতা রয়েছে পাক সেনার। তাদের দাবি, ১২৫ থেকে ২৫০ গ্রাম পর্যন্ত হাইড্রোজেন বোমা রয়েছে পাকিস্তানের হাতে। যা দিয়ে এলাকাভিত্তিক আক্রমণ চালানো যায়।

আপনার মতামত লিখুন :