হারিয়ে ফেলেছি- নির্ঝরণী

সাইফুল ইসলাম বারী-টাঙ্গাইল
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  12:58 PM, 16 August 2020

গাছে কদমফুল ফুটেছে, বন্যার পানিতে নদী থৈ থৈ করছে।হাঁসের ঝাক শামুক কুড়াচ্ছে আর প্যাঁ প্যাঁ শব্দ করছে।।নদীর পাড়ের অপূর্ব দৃশ্য, আর ঝিরিঝিরি হাওয়া স্পর্শ করেছে নির্ঝরণীর মন।কিন্তু নির্ঝরণী অনেকক্ষণ ধরে অপেক্ষা করছে।কাদেরের আসার কথা ২ ঘন্টা আগে।ঘানিকটা বিরক্তবোধও হচ্ছে কিন্তু অদ্ভুত প্রেমের কাছে এইটুকুন ছোটখাটো রাগ পছন্দের মানুষের একটু হাসিতেই বিলীন হয়ে যায়।
এতক্ষণ পর কাদের এসেছে।
নির্ঝরণী মৃদু হেসে বলল,এই তোমার আসার সময় হলো?
কাদের উত্তর না দিয়েই বলল,দেখেছ কত সুন্দর নদী,উত্তাল ঢেউ তার মাঝে আমরা বসে আছি।
নির্ঝরণী বলল,আমার বিয়ে ঠিক হয়ে যাচ্ছে, যদি তোমাকেই না পাই,তবে সুন্দর উত্তাল ঢেউ, এই হাওয়া দিয়ে কি হবে বলো।
কাদের নদীর দিকে তাকিয়ে বলল,আমার সংসার পছন্দ নয় নির্ঝরণী।আমি অনেক বার তোমাকে বলেছি প্রেম শুধু পূর্ণতায় নয়। আমার মন চায় ঘুরে বেড়াই।দেশের এ প্রান্ত থেকে ওই প্রান্তে যাই,ভবঘুরে এক ছন্নছাড়া মানুষ আমি।
নির্ঝরণীর চোখে অশ্রু টলমল করছে।যেন মনে হচ্ছে পৃথিবীর সব সুখ যেন বিনীল হয়ে যাচ্ছে মাত্র কয়েক মিনিটের ব্যবধানে।
নির্ঝরণী টলমল চোখে বলল,জীবন স্বপ্ন নয় কাদের, জীবন বাস্তবতা।
কাদের বলল,সেটা তোমার কাছে মনে হচ্ছে, কিন্তু আমার ঘুরতে ভালো লাগে। গুছালো জীবন, চাকরি, বউ একটা সাংসারিক জীবন আমার পছন্দ নয়।
সেদিন নির্ঝরণী অস্রু গড়াতে গড়াতে চলে গেলো।আর কথা হয়নি তাদের।
পৃথিবী বড়ই অদ্ভুত। কি পাওয়া যায় আর কি জীবন থেকে হারিয়ে যায় তা সব মানুষেরই অজানা।
কাদের বেছে নিয়েছিল ভবঘুরে জীবন। দেশে দেশে ঘুরে ফিরেছে।
কিন্তু পৃথিবীর সমাপ্তি যেখানে সুনিশ্চিত, সেখানে সব কিছুরই সমাপ্তি রয়েছে। কাদেরের ভবঘুরে জীবনের ইতি ঘটেছে ।কোন এক বর্ষায় যখন বৃষ্টিতে বিজে যাচ্ছে চারপাশ তখন জানালার দ্বারে বসে কাদেরের মনে পড়ে গেলে এইসব দিনগুলোর কথা।আর গান শুরু করল,
“আমার হিয়ার মাঝে লুকিয়ে ছিলে দেখতে আমি পাইনি তোমায়,দেখতে আমি পাইনি”।

সুজন আহমেদ
ইতিহাস ও সভ্যতা বিভাগ
বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়

আপনার মতামত লিখুন :